ঢাকা ০১:৫৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১৯ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
চাঁদপুর পৌর শহীদ জাবেদ স্কুল এন্ড কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পূর্ণমিলনী কার্যক্রমের সূচনা মোল্লাকান্দিতে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে বাড়ি-ঘর লুট ও ভাঙচুরের অভিযোগ শ্রীনগরে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি পালন শ্রীনগরে চাঁদাবাজির মামলায় ইউপি সদস্য গ্রেফতার মুন্সীগঞ্জে জমির মালিকানা নিয়ে ধুম্রজাল পদ্মা সেতুতে ছয় মাসে আয় ৩৯৫ কোটি করোনায় চিকিৎসাহীন কেউ মারা গেলে তা ফৌজদারী অপরাধ : হাইকোর্ট আত্মহত্যা করেছেন বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত ‘রেড জোন’ হিসেবে চিহ্নিত যেসব এলাকা… ধর্ম পালনের জন্য মিডিয়াকে ‘গুডবাই’ জানালেন সুজানা!

ছেলের ২০ দিন পর মায়ের মৃত্যু

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:০৭:০৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুন ২০২০ ২৩ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনার উপসর্গ নিয়ে ছেলের মৃত্যুর ২০ দিন পর মায়েরও মৃত্যু হয়েছে। ২২ মে ছেলে মারা যাওয়ার পর বৃহস্পতিবার (১১ জুন) ওই ছেলের মায়ের মৃত্যু হয়। স্বাস্থ্যবিধি মেনেই দুজনের সৎকার সম্পন্ন হয়েছে। ছেলের করোনা বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে মায়ের নমুনা নেওয়া হয়েছে। ওই পরিবারের আরও চার সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার ঈদগাহ মাঠ সংলগ্ন কামার পাড়ার এক যুবক চট্টগ্রাম থাকতেন। তিনি করোনা উপসর্গ নিয়ে বাড়িতে চলে আসেন। তবে তিনি বিষয়টি কাউকে বলেননি। বাড়িতে আসার পর থেকেই তিনি সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলছিলেন। এক পর্যায়ে অসুস্থ হলে তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়ার পর হৃদরোগে তিনি মারা যান বলে জানানো হয়। পরে করোনা সন্দেহে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই তার সৎকার সম্পন্ন করা হয়।

এরপর পরিবারের সদস্যদের নমুনা দেওয়া হলে ওই যুবকের বড় ভাইসহ চার জনের করোনা পজেটিভ আসে। তবে মায়ের ফলাফল আসেনি। অসুস্থ অবস্থায় বৃহস্পতিবার ঢাকায় নেওয়ার পর তিনি মারা যান। বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসনকে জানানোর পর প্রশাসনের সহায়তায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে রাতেই শহরের শিমরাইল কান্দি শ্মশানে ওই নারীর সৎকার করা হয়।

স্থানীয়ভাবে গঠন করা সৎকার কমিটির সদস্য সাংবাদিক প্রবীর চৌধুরী রিপন জানান, ওই দুজন করোনা আক্রান্ত কিনা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এসিল্যান্ডের উপস্থিতিতে সরকারি সহায়তায় সবাই মিলে ওই নারীর সৎকার সম্পন্ন করা হয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এবিএম মশিউজ্জামান জানান, প্রয়াত ওই নারীর করোনা উপসর্গ থাকায় তাকে সরকারিভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই সৎকার করা হয়েছে। ওই নারীর শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। ফলাফল আসলে পরবর্তী সময়ে বিস্তারিত জানা যাবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

ছেলের ২০ দিন পর মায়ের মৃত্যু

আপডেট সময় : ০৫:০৭:০৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুন ২০২০

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনার উপসর্গ নিয়ে ছেলের মৃত্যুর ২০ দিন পর মায়েরও মৃত্যু হয়েছে। ২২ মে ছেলে মারা যাওয়ার পর বৃহস্পতিবার (১১ জুন) ওই ছেলের মায়ের মৃত্যু হয়। স্বাস্থ্যবিধি মেনেই দুজনের সৎকার সম্পন্ন হয়েছে। ছেলের করোনা বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে মায়ের নমুনা নেওয়া হয়েছে। ওই পরিবারের আরও চার সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার ঈদগাহ মাঠ সংলগ্ন কামার পাড়ার এক যুবক চট্টগ্রাম থাকতেন। তিনি করোনা উপসর্গ নিয়ে বাড়িতে চলে আসেন। তবে তিনি বিষয়টি কাউকে বলেননি। বাড়িতে আসার পর থেকেই তিনি সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলছিলেন। এক পর্যায়ে অসুস্থ হলে তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়ার পর হৃদরোগে তিনি মারা যান বলে জানানো হয়। পরে করোনা সন্দেহে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই তার সৎকার সম্পন্ন করা হয়।

এরপর পরিবারের সদস্যদের নমুনা দেওয়া হলে ওই যুবকের বড় ভাইসহ চার জনের করোনা পজেটিভ আসে। তবে মায়ের ফলাফল আসেনি। অসুস্থ অবস্থায় বৃহস্পতিবার ঢাকায় নেওয়ার পর তিনি মারা যান। বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসনকে জানানোর পর প্রশাসনের সহায়তায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে রাতেই শহরের শিমরাইল কান্দি শ্মশানে ওই নারীর সৎকার করা হয়।

স্থানীয়ভাবে গঠন করা সৎকার কমিটির সদস্য সাংবাদিক প্রবীর চৌধুরী রিপন জানান, ওই দুজন করোনা আক্রান্ত কিনা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এসিল্যান্ডের উপস্থিতিতে সরকারি সহায়তায় সবাই মিলে ওই নারীর সৎকার সম্পন্ন করা হয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এবিএম মশিউজ্জামান জানান, প্রয়াত ওই নারীর করোনা উপসর্গ থাকায় তাকে সরকারিভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই সৎকার করা হয়েছে। ওই নারীর শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। ফলাফল আসলে পরবর্তী সময়ে বিস্তারিত জানা যাবে।